নদীর পারে

ওইখানে ওই নদীর পারে
কদম গাছের ছায়,
অবাধ মনটি আমার শুধু
হোথায় চলে যায়।
সেথায় আছে শাপলা শালুক
সাড়স শালিক চড়ুই কত,
টুনটুনি আর কোকিল তারা
নাচে গায় অ-বিরত,
গান গেয়ে যে মাঝি ভায়া
পাড়ের খেয়া বায়।
মন যে আমার রয়না ঘরে
সেথায় চলে যায়।

কুলু কুলু শব্দে সেথায়
বয়ে চলে নদী,
সব মিলিয়ে সেথায় যে এক
স্বপ্ন মাখা ছবি।
দূরে দূরে মেঘের মেলা
তারই মাঝে ভাসিয়ে ভেলা
মন যে আমার ছুটে চলে
বেলা অ-বেলায়।
জোনাকিরা সন্ধ্যা বেলায়
সাঁঝের বাতি দেয়,
উড়ু উড়ু মনটা আমার
সেথায় চলে যায়।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is Copyrighted !!